পুরাণ

পুরাণ

পুরাণ

ঐতিহ্য, পুরাণ
পুরাণ দুলাল ভৌমিক পুরাণ : ইতিহাস, আখ্যান-উপাখ্যান, ধর্মীয় বিধিবিধান ইত্যাদি সম্বলিত এক শ্রেণীর মিশ্র সাহিত্য। সাধারণ মানুষের গল্পরস আস্বাদনের আকাঙ্ক্ষা থেকে এর উৎপত্তি। উপনিষদের যুগে উচ্চমার্গের দার্শনিক তত্ত্ব যখন শ্রেণীবিশেষের মধ্যে সীমাবদ্ধ হয়ে পড়ে, তখন গণমানুষের চাহিদা মেটাতে গল্পের ঢঙে সহজ-সরল ভাষায় রচিত হয় প্রধানত কাহিনীমূলক এই পুরাণ সাহিত্য। সাহিত্যরসের সঙ্গে যাতে ধর্মলাভও হয় সেজন্য ধর্মীয় বিষয়াদিও এর সঙ্গে যুক্ত করা হয়। পাঁচটি লক্ষণ পুরাণের সাধারণ লক্ষণ পাঁচটি : সর্গ, প্রতিসর্গ, বংশ, মন্বন্তর এবং বংশানুচরিত। এর মধ্য দিয়ে পুরাণের আলোচ্য বিষয়ও প্রতিফলিত হয়েছে। সর্গের আলোচ্য বিষয় সৃষ্টিতত্ত্ব। গল্পচ্ছলে এখানে বিশ্বসৃষ্টির কারণ ও পদ্ধতি বর্ণিত হয়েছে। প্রতিসর্গের বিষয় ধ্বংসের পর নতুন বিশ্বসৃষ্টি। সৃষ্টিমাত্রেরই যেমন ধ্বংস অনিবার্য, তেমনি প্রলয়ের পর নবসৃষ্টিও...